ইসরায়েলের ইতিহাস (পর্ব-১) - সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
ইসরায়েলের ইতিহাস (পর্ব-১) - সব খবর | Sob khobar




ইসরায়েলের ইতিহাস (পর্ব-১)

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ১৯ মে, ২০২১
  • ৩২৯ জন পড়েছে

ইসরায়েল নামটির সাথে আমাদের জাতিগত বিদ্বেষ রয়েছে। রাষ্ট্রটি ১৪ মে,তাদের ৭৩ তম জন্মবার্ষিক উদযাপন করছে।

অন্যদিকে ফিলিস্তিনের মুসলিম ভাইয়েরা গাজা উপত্যকায় নির্বিচারে, নির্বিঘ্নে, বীরের মত শহীদ হয়ে যাচ্ছে। বন্ধুপ্রতিম দেশ ফিলিস্তিন সম্পর্কে কম বেশি সবারই জানা।

তাবৎ দুনিয়ার একমাত্র ইহুদি রাষ্ট্র ইসরায়েল। যেখানে দুনিয়ার যেকোনো প্রান্তে কোন ইহুদি জন্মগ্রহণ করলে সাথে সাথে রাষ্ট্রটির নাগরিকত্ব পেয়ে যায় তারা।

ইসরায়েল নামটি পবিত্র কুরআন এর ইয়াকুব নবীর সাথে যেমন জড়িত ঠিক একইভাবে জড়িত বাইবেলের অন্যতম চরিত্র Jacob কে ঘিরে।
ইসরায়েল নামের অর্থ হল ‘ঈশ্বরের জন্য সংগ্রাম’।

Book of Genesis (আদিপুস্তক) অনুযায়ী, ইয়াকুব একটি নদীতে একজন আগন্তুকের সাথে নদীর হাঁটুজলে প্রবল যুদ্ধে লিপ্ত হন এবং প্রচন্ড অধ্যবসায়ের কারণে শেষ পর্যন্ত সেই যুদ্ধে জয়ী হন। তাই ঈশ্বর তাঁর নাম পরিবর্তন করে ‘ইসরায়েল’ রাখেন।

ইতিহাসবেত্তাগন মনে করেন, ইসরায়েল নামের সাথে ইয়াকুব নবী এবং তার পরবর্তী বংশধরদের ইতিহাস জড়িত। একই রকম কথা পবিত্র কুরআন শরীফেও পাওয়া যায় সূরা বনী ইসরাঈলে।

ইসরায়েল এর পতাকায় খচিত আছে দাউদ নবীর সময়কালের তারকা যেটি ইহুদিদের কাছে ‘Star of David’ কিংবা ‘Shield of David’ নামেও পরিচিত। এটি ছয় শীর্ষ বিশিষ্ট তারকা। ১৯ শতকে এই চিহ্নটি ইহুদিদের মাঝে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় এবং এটির দ্বারা তারা ‘শহীদের যন্ত্রণা’ এবং ‘বীরত্বকে’ নির্দেশ করে।

ইসরায়েল রাষ্ট্রের জন্মের ইতিহাস- প্রায় ৩০০০ বছর পূর্বে এই অঞ্চলে অর্থাৎ সিরিয়া, লেবানন, জর্ডান, ফিলিস্তিন ও বর্তমান ইসরায়েলে তাদের পূর্ব পুরুষদের বসবাস ছিল বলে দাবি ইহুদিদের। কিন্তু ইতিহাসের নানা সময় তারা নানা রকম ভাবে দমন-পীড়নের শিকার হয়ে এই অঞ্চল থেকে বিতাড়িত হতে বাধ্য হয় এবং সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ে।

৭ম শতকে এই অঞ্চলটি মুসলিমদের অধীনে চলে যায়। ১০৯৯ সালে খ্রিস্টান ও মুসলমানদের মধ্যে চলা প্রথম ক্রুসেড। ১০৯৬-১০৯৯ সাল পর্যন্ত চলে। এই যুদ্ধে মুসলিমরা পরাজিত হয় এবং এই অঞ্চলের উপর অধিকার হারায়। ১১৮৭ সালে কুর্দি বংশোদ্ভূত সুলতান সালাহউদ্দিন আইয়ুবীর নেতৃত্বে এটি পুনরায় আইয়ুবী রাজবংশের অধীনে চলে যায় অর্থাৎ মুসলমানদের করতলগত হয়। ত্রয়োদশ শতাব্দীতে ইসরায়েল অঞ্চলটি পুনরায় মিশরের মামলুক সালতানাতের হাতে চলে যায়।

১৫১৭ সালে তুরস্কের উসমানীয় সাম্রাজ্যের অধীনস্থ হয় এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পরে তুরস্ক পতনের পূর্ব পর্যন্ত দীর্ঘ প্রায় ৪০০ বছর এই সাম্রাজ্যের অধীনেই থাকে। ইতিহাসের নানা টানা-পোড়েনের মধ্যে দিয়ে চলমান এই ইহুদি জাতি ৭ম শতাব্দী থেকেই বিশ্বের নানা জায়গায় পালিয়ে বেড়িয়েছে। শেষ অব্দি তারা ইউরোপে গিয়ে থিতু হয়। বেশিরভাগ ইহুদিরা বাস করত জার্মান ও রুশ অঞ্চলে। খ্রিস্টান ধর্মানুসারীদের সাথে নতুন করে তাদের উপর নিপীড়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয় জাতীয়তাবাদীরা। (চলবে)

সংগ্রহীত




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর