কুবিতে ইভিনিং কোর্সের নাম পরিবর্তন করে চালু হচ্ছে উইকেন্ড কোর্স | সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
কুবিতে ইভিনিং কোর্সের নাম পরিবর্তন করে চালু হচ্ছে উইকেন্ড কোর্স | সব খবর | Sob khobar




কুবিতে ইভিনিং কোর্সের নাম পরিবর্তন করে চালু হচ্ছে উইকেন্ড কোর্স

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১৬৬ জন পড়েছে

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) উপাচার্যের সন্ধ্যাকালীন কোর্স বন্ধের ঘোষণার পর এবার নতুন করে চালু করা হয়েছে সপ্তাহান্ত (উইকেন্ড) কোর্স। প্রতি শুক্র ও শনিবার দিনের বেলায় এই কোর্সের অধীনে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেয়া হবে বলে জানা গেছে। ‘পুরাতন বোতলে নতুন মদের মতো’ এই প্রাইভেট প্রোগ্রাম চালু থাকলেও বিষয়টি জানা নেই খোদ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, গত ১৩ এবং ১৬ ডিসেম্বর বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো: আমজাদ হোসেন সরকার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দেখা যায়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের অধীনে চারটি বিভাগে ‘উইকেন্ড প্রোগ্রাম’ কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তি নেয়া হবে। এই কোর্সে আবেদনের শেষ সময়সীমা জানুয়ারি মাসের ২৮ তারিখ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

যদিও এর আগে গত ১২ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের নির্দেশনার প্রেক্ষিতে সন্ধ্যাকালীন কোর্স বন্ধের ঘোষণা আসে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পক্ষ থেকে। এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. মো: আবু তাহের বলেছিলেন, ‘উপাচার্য মহোদয় বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন করে সন্ধ্যাকালীন কোর্সে শিক্ষার্থী বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছেন। তবে বর্তমানে যেসব শিক্ষার্থী ভর্তি আছেন তারা নিয়মানুযায়ী তাদের কোর্স সমাপ্ত করতে পারবেন। কিন্তু নতুন করে আর কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি নেয়া হবে না।’

তবে সন্ধ্যাকালীন কোর্স বন্ধের ঘোষণা দিয়ে দিনের বেলায় এই উইকেন্ড কোর্স চালু যেন নতুন মোড়কে শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ বলে মতামত অনেক শিক্ষার্থীর।

এ প্রসঙ্গে অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মোঃ শাহাবুদ্দিন বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি সান্ধ্যকালীন কোর্স বন্ধ করতে বলা মানে আমার মনে হয় তিনি শুধু রাতের বেলা কোর্স বন্ধ করতে বলেছেন এমনটি নয়। বরং আমি মনে করি তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ বন্ধের প্রতিই ইঙ্গিত দিয়েছেন। এখন নাম পাল্টে দিনের বেলায় একই কোর্স চালু রাখা পুরনো পণ্যের মোড়ক পাল্টানো ছাড়া কিছুই নয়।’

লোক প্রশাসন বিভাগের আরেক শিক্ষার্থী রিজওয়ান কবির বলেন, ‘নগদ সুবিধা প্রাপ্তির আশায় এই ধরনের কোর্স চালু হলে শিক্ষার পরিবেশের পাশাপাশি সার্বিক পরিবেশ বিঘ্নিত হবে। আমরা চাই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈশিষ্ট্য ও ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করে এমন কোর্স যাতে নতুন করে চালু না হয়।’

এই উইকেন্ড কোর্স এর ব্যাপারে জানতে চাইলে ব্যবসা অনুষদের ডিন ড. আমজাদ হোসেন সরকার বলেন, ‘আমরা সন্ধ্যাকালীন কোর্স বন্ধের কোনো অফিসিয়াল নোটিশ পাইনি। আমরা যে কোর্সের বিজ্ঞপ্তি দিয়েছি সেটি সন্ধ্যাকালীন কোর্স নয়। এটি উইকেন্ড প্রোগ্রাম। যেখানে শুধু শুক্র ও শনিবার দিনের বেলায় ক্লাস হবে।’

এ প্রসঙ্গে রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. মোঃ আবু তাহের বলেন, ‘এর আগে উপাচার্য মহোদয় বলেছিলেন সন্ধ্যাকালীন কোর্স চলবে না। তবে এখন আবার নতুন করে যে উইকেন্ড কোর্স চালু হয়েছে সেটি আমার জানা নেই। আমি খোঁজ নিয়ে উপাচার্য স্যারের সাথে এ ব্যাপারে কথা বলে বিস্তারিত জানাতে পারবো।’




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর