ঘিওরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে বাকবিতন্ডা, হামলার শিকার ব্যবসায়ী - সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
ঘিওরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে বাকবিতন্ডা, হামলার শিকার ব্যবসায়ী - সব খবর | Sob khobar




ঘিওরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে বাকবিতন্ডা, হামলার শিকার ব্যবসায়ী

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৪ জন পড়েছে

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলায় ইউনিয়ন নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষ নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে হামলায় এক ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন।

উপজেলার বানিয়াজুরী ইউনিয়নের তরা গ্রামের (আকিজ গেট) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আজ শুক্রবার দুপুরে হামলার শিকার ব্যবসায়ী মোঃ লিটন মিয়া (৪০) ঘিওর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এই অভিযোগে মুল আসামী শওকত সহ ছয়জনকে আসামী করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তরা টোল প্লাজা এলাকায় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদে দুই প্রার্থীর সমর্থন করা নিয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ী লিটন মিয়া ও মোঃ শওকত মিয়ার (৫০) সাথে কথা কাটাকাটি হয়। তখন উপস্থিত মুরুব্বীরা দুইজনকে শান্ত করে করে দেন। এর কিছুক্ষন পর মোঃ শওকত মিয়ার নেতৃত্বে ১৫/২০ জন লোক দেশীয় অস্ত্র, লাঠিসোটা নিয়ে লিটনের ওপর হামলা করে। আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এলে লিটনকে রক্তাত্ত অবস্থায় ফেলে রেখে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে হামলাকারীরা চলে যায়। পরে স্থানীয়রা আহত লিটন মিয়াকে উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।

হামলার শিকার লিটন মিয়া বলেন, আমাদের গ্রাম থেকে এবারের নির্বাচনে একজন চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। সেই প্রার্থির বিষয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধার পর তরা বাসষ্ট্যান্ডে আমি আমাদের গ্রামের দুজন লোকের সাথে আলাপ করছিলাম। তখন পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় শওকত মিয়া গলায় ঢোল বেঁধে নির্বাচনী আলাপ করতে বলে ব্যাঙ্গ করে। আমি এর প্রতিবাদ করলে, সে উত্তেজিত হয়ে আমাকে দেখে নেয়ার হুমকী দেয়। তখন এলাকার মুরুব্বীরা আমাদের দুজনকে শান্ত করেন। আমি ঘটনাস্থল ত্যাগ করে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে (আজিজ ফ্যাক্টরীর পাশে) যাওয়ার সময় শওকত, তার ছেলে রাব্বিসহ ১৫/২০ জন লোক আমার ওপর অর্তকিত ভাব্ েঝাঁপিয়ে পরে। তাদের হাতে থাকা লোহার চেইন, হাতুড়ি এবং কাঠের বাটাম দিয়ে এলাপাথারী পিটাতে থাকে। আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এই এই হামলার বিচার দাবী করছি।

অভিযুক্ত মোঃ শওকত মিয়া বলেন, নির্বাচনী প্রার্থী নিয়ে লিটন খুব বাজে আচরন করায় কথা কাটাকাটি হয়েছে। তার ওপর হামলায় আমি জড়িত নই। স্থানীয় ছেলেদের সাথে ধাক্কাধাক্কি হয়েছে। টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়ার বিষয়টি সত্য নয় বলে জানিয়েছে।

ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, লিটন মিয়ার কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর