দেশের সিনেমা হল কাঁপাচ্ছে সিয়াম-পূজার ‘শান‘ - সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
দেশের সিনেমা হল কাঁপাচ্ছে সিয়াম-পূজার ‘শান‘ - সব খবর | Sob khobar




দেশের সিনেমা হল কাঁপাচ্ছে সিয়াম-পূজার ‘শান‘

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২
  • ১০৪ জন পড়েছে

ঈদের সিনেমা নিয়ে বহুদিন ধরেই দেখা যায়নি কোন হইচই। কোনো কোনো ঈদে মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলো নীরবেই হারিয়ে গেছে। সেই দীর্ঘ নীরবতা পেরিয়ে দেশের সবগুলো হল কাঁপাচ্ছে শান। গেল ঈদুল ফিতরে দেশের ৩৪টি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে শান। তাতেই বাজিমাত করেছে সিয়াম আহমেদ ও পূজা চেরি অভিনীত সিনেমাটি। শান সিনেমা প্রদর্শনের সময়ে বেশির ভাগ শো ছিল হাউজফুল। ভালো সাড়া এসেছে দর্শক ও সমালোচকদের কাছ থেকেও।

যমুনা ফিউচার পার্কের ব্লকবাস্টার সিনেমাসেও চলছে শানের শো। ব্লকবাস্টার সিনেমাসের সহকারী মার্কেটিং ম্যানেজার মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, ঈদের দিন শানের তিনটি শো ছিল। ঈদের পরদিন থেকে প্রতিদিন চারটি করে শো চলছে। বুধবারের শেষ শোও হাউজফুল ছিল। গতকালও দর্শকদের আগ্রহ টের পাওয়া গিয়েছে।

এবারের ঈদে মুক্তি পাওয়া সব বাংলা ছবিই প্রদর্শন করা হচ্ছে ব্লকবাস্টার সিনেমাসে। তার মধ্যে শান নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ বেশি থাকায় সবচেয়ে বেশি শো দেয়া হয়েছে।

তাছাড়া ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্স, মধুমিতা ও শ্যামলী সিনেমা হলে হইহই চলছে শান নিয়ে। কলরব শোনা যাচ্ছে ঢাকার বাইরের হলগুলোতেও। শান নিয়ে ব্যাপক প্রচারণাও চালাচ্ছেন সিয়াম-পূজা। শান সিনেমার শুটিংয়ে যে বাইক ব্যবহার করা হয়েছিল, সেই বাইকে চেপেই নারায়ণগঞ্জে প্রচারণা চালাতে দেখা গেছে তাদের। সেখানকার নিউ মেট্রো ও সিনেস্কোপে শানের শো ছিল হাউজফুল।

ফেসবুক পোস্টে দর্শকদের প্রতি ভালোবাসা জানিয়েছেন সিয়াম আহমেদ। এক পোস্টে তিনি লিখেছেন, সবখান থেকেই ভালো খবর। এমন রেসপন্স প্রত্যাশার চেয়েও বেশি। টিম শান সারা দিন চেষ্টা করেছে দর্শকদের কাছে পৌঁছাতে, যারা এত কষ্ট করে বাংলা সিনেমার দুর্দিনে হলে এসে ছবি দেখছে নিজের গাঁটের টাকা খরচ করে। আপনাদের স্যালুট।

যদিও নতুন পরিচালক হিসেবে একটু ভয়ে ভয়েই ছিলেন এম রাহিম। সিনেমা মুক্তির পর দর্শকদের ভালোবাসা দেখে তার মন আপ্লুত হয়ে গেছে। গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, তিনটা বছর এ প্রজেক্টের সঙ্গে ছিলাম। অনেক কষ্ট-ত্যাগের ফল এ সিনেমা। প্রথমে ভয়ে ভয়ে ছিলাম। এখন সবাই ইতিবাচকভাবে নিচ্ছে দেখে ভালো লাগছে। কিন্তু অনেকে ছবি না দেখেই মন্তব্য জানাচ্ছে। আমি চাই, সবাই সিনেমাটা দেখুক। দেখে মন্তব্য জানালে ভবিষ্যতে আমরা আরো ভালো করতে পারব।

সিনামাটির গল্প লিখেছেন মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খান।

আ/লি




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর