পায়ে পচঁনধরা অসহায় বৃদ্ধের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ছাত্রলীগ নেতা ‍সুমন - সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
পায়ে পচঁনধরা অসহায় বৃদ্ধের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ছাত্রলীগ নেতা ‍সুমন - সব খবর | Sob khobar




পায়ে পচঁনধরা অসহায় বৃদ্ধের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ছাত্রলীগ নেতা ‍সুমন

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৯৬৭ জন পড়েছে

মানিকগঞ্জ: মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে চিকিৎসকদের চরম অবহেলায় চিকিৎসা সেবা বঞ্চিত জয়নাল (৭০) নামে এক দরিদ্র অসহায় মুমূর্ষ রোগীর চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি এম এ সিফাদ কোরাইশী সুমন।

শুক্রবার বিকেলে ওই রোগীর করুণ দশা ও অসহায়ত্ব দেখে তিনি এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। এ বিষয়ে তিনি স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপনের সহযোগীতা নিবেন বলে জানিয়েছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তিনি ওই রোগীর করুণ অবস্থার কথা জানতে পেরে তিনি কর্ণেল মালেক মেডিক্যাল কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থীদের নিয়ে ঐ বৃদ্ধকে হাসপাতালে দেখতে যান। রোগীর করুন দশা দেখে তিনি হাসপাতাল কতৃপক্ষ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর একান্ত সহকারী ফারুক আহম্মেদ কে বিষয়টি অবগত করেন। সেই সাথে মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী ও কর্তব্যরতদের সহযোগীতায় বৃদ্ধ ঐ রোগীকে জরুরী বিভাগে নিয়ে উন্নত ড্রেসিং এর মাধ্যমে পায়ের পঁচা অংশ থেকে পোঁকামুক্ত করা হয়। পাশাপাশি তিনি ওই রোগীর জন্য খাবার, ঔষধ, মশারী ও পরীক্ষা নিরীক্ষার ব্যবস্থা করেন।

সিফাদ কোরাইশী সুমন জানান, যে দেশের প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা, সে দেশের মানুষ বিনা চিকিৎসায় মারা যাবে না। সকলের সহযোগীতায় বর্তমানে তার উন্নত চিকিৎসার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। আগামীকাল তার পরীক্ষা নিরীক্ষাসহ প্রয়োজনে ঢাকায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। তার সার্বক্ষনিক দেখাশোনার জন্য একজন আয়াও খোজা হচ্ছে।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ অভিভাবকসম নেতাকর্মীদের জানানো হয়েছে।

তিনি জানান, ধারনা করা হচ্ছে বৃদ্ধটিকে সুস্থ্য করার জন্য তার পা কেটে ফেলতে হতে পারে। বড় ধরনের অপারেশনের প্রস্তুতি ও রোগীর স্বজনদের খোঁজাখোজি চলছে। ড্রেসিং করার পর রোগীকে গরম দুধ ও প্রয়োজনীয় ঔষধ সরবারহ করা হয়েছে। ঔষধ, খাবার ও নিয়মিত দেখাশোনার জন্য মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী সাচি, আব্দুল্লাহ ও সিয়াম কে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। শনিবার পরিক্ষা-নিরিক্ষা শেষে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

জানা গেছে, হাসপাতালের সামনে পায়ের যন্ত্রণায় পরে থাকা ঐ বৃদ্ধকে বৃহস্পতিবার দুপুরে বায়েজিত নামের কর্ণেল মালেক মেডিকেল কলেজের এক শিক্ষার্থী হাসপাতালে ভর্তি করেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঐ বৃদ্ধকে ভর্তি করা হলেও পায়ের পঁচা অংশে জমে থাকা পোকা পরিস্কার না করেই নাম মাত্র ড্রেসিং করে বারান্দায় সিট দেয় কর্তব্যরতরা। জরাজীর্ণ ও বালিশহীন বিছানায় তাকে রাখা হয় অযত্ন অবহেলায়।




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর