ভিন্ন কাজের জন্যই প্রশংশিত হচ্ছেন ব্যারিস্টার ইমাম হাসান | সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
ভিন্ন কাজের জন্যই প্রশংশিত হচ্ছেন ব্যারিস্টার ইমাম হাসান | সব খবর | Sob khobar




ভিন্ন কাজের জন্যই প্রশংশিত হচ্ছেন ব্যারিস্টার ইমাম হাসান

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ৬ মে, ২০২০
  • ৪৩৪ জন পড়েছে
ভিন্ন কাজের জন্যই প্রশংশিত হচ্ছেন ব্যারিস্টার ইমাম হাসান

আসাদ জামান: কোভিড-১৯ যা করোনাভাইরাস নামে পরিচিত। সাম্প্রতিক সময়ে গণমাধ্যমের শিরোনামে প্রাধান্য বিস্তার করেছে এই ভাইরাসটি। ইতিমধ্যেই বিশ্বের ২১০টি দেশে ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস। তিন মাসেরও কম সময়ে এটি এখন বিশ্ব মহামারীতে পরিনত হয়েছে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারনে দেশব্যাপী কর্মহীন ও অসচ্ছল পরিবারদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন সরকারী-বেসরকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও নানা পেশার ব্যক্তিরা। অসচ্ছল এই পরিবারদেরকে খাদ্যসামগ্রী প্রদানের সময় সমালোচিতই হয়েছেন অনেকে এমন সংবাদ প্রচারিত হয়েছে দেশের গণমাধ্যমগুলোতে । অন্যদিকে অনেকেই প্রশংশিত হয়েছেন তাদের ব্যবহার ও কাজ দ্বারা।

ব্যারিস্টার এ এইচ ইমাম হাসান ভূইয়া বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের একজন আইনজীবী। যিনি ইতিমধ্যেই তার পৈত্রিক নিবাস ঢাকার আশুলিয়া  ও  বিভিন্ন এলাকার দুঃস্থ , অসহায় মানুষদের কাছে আস্থার জায়গা করে নিয়েছেন। দেশের অনেকেই যখন ত্রান বিতরনের নামে নিজের প্রচারনা চালাচ্ছেন তখনি তাকে দেখা গেলো ভিন্নভাবে।

করোনা পরিস্থিতিতে তিনি ঢাকা থেকে ছুটে এসেছেন তার পৈত্রিক নিবাস ঢাকার আশুলিয়ায়। সেখানে অবস্থান করেই সামাজিক সচেতনতামূলক কার্যক্রম এবং অসহায়, দুঃস্থদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন নিয়মিত। আশুলিয়া থানার বিভিন্ন এলাকা, ঢাকার নিউমার্কেট, জিগাতলা, হাজারীবাগ, ঢাকা বিস্ববিদ্যালয় এলাকার বিভিন্ন স্থানের অসহায়দের তালিকা প্রস্তুত করে রাত ৯ টার পর বাড়ি বাড়ি গিয়ে দরজার সামনে খাদ্যদ্রব্য রেখে আসছেন তিনি।

ভিন্ন কাজের জন্যই প্রশংশিত হচ্ছেন ব্যারিস্টার ইমাম হাসান

নিজের উদ্যোগে ক্ষেত্র বিশেষে বন্ধু ও ভাইদের সহযোগীতায় এ পর্যন্ত সহস্রাধিক পরিবারকে (চাল, ডাল, তেল, লবন, আলু, পেঁয়াজ, সবজি, ছোলা এবং রমজানে মুড়ি) খাদ্যসামগ্রী দিয়েছেন তিনি। ঢাকার জুরাইন, মিরপুর, গাজীপুর, সিলেট, রাজবাড়ীতে স্বশরীরে যেতে না পারায় লোকমাধ্যমে খাদ্যসামগ্রী ও ক্ষেত্র বিশেষে বিকাশের মাধ্যমে টাকা পৌঁছে দিচ্ছেন এই আইনজীবী।

এসব কাজে ব্যারিস্টার ইমামকে দিনরাত সহযোগিতা করছেন মিলন, মিজান, রিপন, আবুল, ওয়াসিম, শাকিল, রাইসুল, খন্দকার, সোহেল, রাজু, উজ্জ্বল, খাইরুলসহ আরো অনেকে। তারা বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়ে রাতের আঁধারে তার সাথে বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই খাদ্যসামগ্রী নিয়মিত পৌঁছে দিচ্ছেন।

এব্যাপারে ব্যারিস্টার ইমাম হাসান ভূইয়া সবখবরকে জানান, এই বিপদের সময়ে উচ্চবিত্তদের কাছ থেকে নিম্নবিত্তদের সাহায্য পাওয়াটা তাদের সামাজিক অধিকার। আর আমরা এই অধিকারটাই কাউকে সম্মানহানি না করে প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়েছি। শুরু থেকে সম্মানের সাথে তাদের প্ৰাপ্যটুকু পৌঁছে দেয়ার কাজটাই করেছি । আল্লাহর রহমতে আমাদের এলাকায় সেটা করতে সক্ষম হয়েছি। প্রতিবন্ধী, বৃদ্ধ, ছোট শিশু ও গর্ভবতী মহিলাদের অগ্রাধিকার দিয়ে তাদের তালিকা তৈরি করে রাত ৯টা থেকে ১২টার মধ্যে আমরা তাদের বাড়ীর দরজার সামনে গিয়ে এসব খাদ্যসামগ্রী রেখে এসেছি।

ভিন্ন কাজের জন্যই প্রশংশিত হচ্ছেন ব্যারিস্টার ইমাম হাসান

তিনি আরো জানান, কারো হাতে কিছু খাদ্যসামগ্রী দিয়ে তার ছবি তুলে তাকে কষ্ট না দেয়াই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। ক্ষেত্রবিশেষে যদি কারো ছবি এসেই পড়ে তাহলে অবশ্যই তার মুখটাকে অস্পষ্ট করে দেয়া উচিৎ বলে মনে করি। এজন্য আমরা তাদের বাড়ীর দরজার সামনে রেখে আসা খাদ্যসামগ্রীর ছবি তোলায় উৎসাহ দিচ্ছি । এভাবে যদি মানুষের কাছে খাদ্যদ্রব্য পৌঁছায় তারা খুশি হবে এবং আল্লাহর কাছে দোয়া করবে। প্রকৃতপক্ষে তাদের কাছ থেকে দোয়া পাওয়ার জন্য এভাবেই তাদেরকে সাহায্য করা উচিত বলে আমি মনে করি।

এই উদ্দেশ্যকে নিয়েই আমরা এক মাস আগে থেকেই কাজটা শুরু করেছিলাম এবং আমাদের এলাকায় যারা এমন খাদ্য সহায়তা দিচ্ছেন তারাও এ ব্যাপারটা ভালোভাবে গ্রহন করেছেন।

সবখবর/ আআ




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর