রমজানে যাকাত দেওয়ার ফজিলত
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
রমজানে যাকাত দেওয়ার ফজিলত




রমজানে যাকাত দেওয়ার ফজিলত

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৯০ জন পড়েছে

তাদের মালামাল থেকে যাকাত গ্রহন কর যাতে তুমি সেগুলোকে পবিত্র করতে এবং সেগূলোকে বারাকাতময় করতে পার এর মাধ্যমে (সুরা তাওবাহ আয়াত ১০৩)।

প্রত্যেক সামর্থবান মুসলিমের জন্য যাকাত হচ্ছে একান্ত কর্তব্য ও ফরজ । সমাজের ধনী ও সচ্ছল লোকদের বাড়তি সম্পদের একটি নির্দিষ্ট অংশ নিয়মিত আদায় করে দরিদ্র ও বঞ্চিত লোকদের মধ্যে যথাযথ বন্টন করাই কর্মসুচির প্রধান বৈশিষ্ট্য । এ যাকাতের কথা পবিত্র কোরআনে কোন কোন মতে ৩২ বার এবং অধিকাংশের মতে ৮২ বার উল্লেখ রয়েছে ।

রমজান মাসের মর্যাদা ও তাৎপর্য বিশেষভাবে উল্লেখিত। তবে ইসলাম আসার আগে, কোরআন নাজিল হওয়ার আগে রমজান মাসের মর্যাদা অন্য মাসে চেয়ে কম ছিল। সে সময় চারটি মাস ছিল সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ সেগুলো হল, রজব, মোহাররম, জিলকদ, জিলহজ।

ফকির মিসকীনদের জন্য খানা, পোষাক, বাসস্থান এবং অন্যান্য জিনিস যা ছাড়া বাঁচা সম্ভবপর নয়, তবে কোন অতিরিক্ত খরচ করা চলবে না । এর পরিমান নির্ধারণ করা সহজ নয়। কারণ যা এক ব্যক্তির চলে অন্যত্র অন্য ব্যক্তির চলবে না । যা এক জনের ১০ দিনের খরচ তা অন্য কারো ১ দিনের খরচ । তবে সর্বোত্তম ব্যবস্থা হল-অসুস্থের চিকিৎসার জন্য পুর্ণ খরচ দেওয়া, অবিবাহিতের বিবাহ খরচ দেয়া এবং যাকে যাকাত দেয়া হয় ভবিষ্যতে যাতে আর যাকাত নিতে না হয় এরকম ব্যবস্থা করে দেওয়া। যেমন-কোন কর্মের ব্যবস্থা করে দেয়া । এমন কিছু দেয়া যা দ্বারা সে আয় করে জীবিকা অর্জন করতে পারে । যেমন-রিক্সা, ভ্যান, অটোগাড়ী, গরু, ছাগল, হাঁস-মুরগীর খামার ইত্যাদি যাকাত হিসেবে দেওয়া যাতে তার আর্থিক স্বচ্ছলতা আসে ।

ইসলামী অনেক চিন্তাবিদদের মতে, এই বিশেষ মাসেই যাকাত দেয়া উত্তম। এক লক্ষ টাকার যাকাত অন্য মাসে দিলে এক লক্ষ টাকা দান করার সম পরিমাণ সোয়াব হবে। তবে একই পরিমাণ যাকাত যদি রমজানে দেওয়া হয় তাহলে ওই এক লক্ষ টাকার যাকাতে সাত লক্ষ টাকা দানের সোয়াব হবে। তাই মুসলিম নর নারীকে রমজান মাসেই যাকাত দিতে উৎসাহিত করা হয়।

রা/চৌ




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর