সিংগাইরে ঝুঁকিপূর্ণ অর্ধশতাধিক সেতু-কালভার্ট | সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
সিংগাইরে ঝুঁকিপূর্ণ অর্ধশতাধিক সেতু-কালভার্ট | সব খবর | Sob khobar




সিংগাইরে ঝুঁকিপূর্ণ অর্ধশতাধিক সেতু-কালভার্ট

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৬৯ জন পড়েছে

মানিকগঞ্জ: ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার অর্ধশতাধিক সেতু ও কালভার্ট। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে এসব সেতু এখন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এসব সেতু-কালভার্ট দিয়ে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গ্রামীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত ও সহজতর করার লক্ষ্যে আশির দশকে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি), উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে অর্ধশত ব্রিজ নির্মাণ করা হয়। ফলে তৎকালীন সময় গ্রামীণ জনপদের যোগাযোগ ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন আসে। কিন্তু নিম্নমানের কাজ ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে বর্তমানে ব্রিজগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

উপজেলার বায়রা ইউনিয়নের বাইমাইল সেতুটি দিয়েই যেতে হয় ভাষা শহীদ রফিক উদ্দিন আহম্মদের গ্রামের বাড়ি পাড়িল-বলধারা। সেতুটির রেলিং ভেঙে গেছে। ঢালাই উঠে বের হয়ে গেছে রড়। পিলারগুলোর অবস্থাও অত্যন্ত নাজুক। যে কোনো সময় সেতু ধ্বসে দুর্ঘটনার ঘটতে পারে।

বাইমাইল গ্রামের স্কুল শিক্ষক নাসির উদ্দিন জানান, এই সেতু দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন ও মানুষ চলাচল করে। সেতুটি অত্যন্ত সরু, রেলিংও ভাঙাচোরা। ঝুঁকি নিয়েই এই সেতুতে স্থানীয়রা চলাচল করে। যে কারণে ১০ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ চরম দুর্ভোগে রয়েছেন।

অটোচালক শফিকুল জানান, বাইমাইল ব্রীজ দিয়ে প্রতিদিন হাজার খানেক অটোবাইক, সিএনজি, ট্রাক্টর, রিকশা-ভ্যান চলাচল করে। সরু হওয়ায় বড় কোন যানবাহন এখানে চলাচল করে না। ব্রীজটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় আমরা চালকরা সবসময় চিন্তিত থাকি। যেকোন সময় এই ব্রীজে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

স্থানীয় ব্যবসায়ী আমজাদ হোসেন জানান, হাটবাজারে খাদ্য শস্য ও ব্যবসায়িক পণ্য আনা নেওয়ায় আমাদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। ভিন্ন পথে পণ্য আনা নেওয়া করায় খরচ অনেক বেড়ে যায়। যে কারণে অর্থনৈতিকভাবেও ক্ষতির মুখে পড়েন তারা। উপজেলার এসব ব্রীজ কালভার্ট গুলো সংস্কার ও পুন: নির্মাণ করার দাবী জানান তিনি।

সিংগাইর উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) রুবাইয়াত জামান জানান, আশির দশকে গ্রামীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত ও সহজতর করার লক্ষ্যে ব্রিজগুলো নির্মাণ করা হয়েছিল। দীর্ঘদিনের পুরনো এসব ব্রিজের অধিকাংশই এখন জরাজীর্ণ। অনেক ব্রিজ মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করা হয়। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ব্রিজ-কালভার্ট প্রকল্পের আওতায় অধিক ঝুঁকিপুর্ণ ব্রিজগুলো পুনঃনির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। বর্তমানে তিনটি ব্রীজের কাজ চলমান রয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজের তালিকা করে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সবগুলো ব্রিজই পুনঃনির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের।

সবখবর/ নিউজ ডেস্ক

নিউজটি শেয়ার করুন




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর