‘সেবার গাড়ি’ নিয়ে মানুষের পাশে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক | সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
‘সেবার গাড়ি’ নিয়ে মানুষের পাশে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক | সব খবর | Sob khobar




‘সেবার গাড়ি’ নিয়ে মানুষের পাশে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ২৩ মে, ২০২০
  • ৬৬ জন পড়েছে
‘সেবার গাড়ি’ নিয়ে মানুষের পাশে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক

আলী ইউনুস হৃদয়: করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সচেতনতা বৃদ্ধিতে ‘করোনা স্কোয়াড-এক’ গঠন করা হয়। পরে দেশে করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির সন্ধান মিললে স্কোয়াডের সদস্যরা সাবান ও ব্লিচিং পাউডার নিয়ে ঝিনাইদহ জেলার প্রত্যন্ত গ্রামের বাজার ও মসজিদে এসব সামগ্রী বিতরণ করেন। দিনে দিনে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লে স্কোয়াডের গৃহীত কার্যক্রম প্রসারিত হতে থাকে।

রমজান মাসের আগে প্রত্যক্ষভাবে ও ফেসবুকের মাধ্যমে বিভিন্ন গ্রামের মানুষের তালিকা করে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। বর্তমানে প্রতিদিন অর্ধশতাধিক মানুষের ইফতার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। আর এখন শতাধিক পরিবারের জন্য ঈদ সামগ্রী দেওয়ার কার্যক্রম চলছে। এরমাঝে ‘সেবার গাড়ি’ ভ্যানে বিভিন্ন ধরনের সবজি নিয়ে মাইকিং করে বিতরণ করা হচ্ছে। আবার কারোর নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের প্রয়োজন হলে সেগুলোও ন্যায্য দামে সরবরাহ করা হচ্ছে। এসব কার্যক্রমের নেতৃত্ব দিচ্ছেন জাতীয় কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এ্যান্ড পারফর্মেন্স স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষক হীরক মুশফিক।

করোনা স্কোয়াডের প্রতিষ্ঠাতা এই শিক্ষক শুরুতে পরিবারের সদস্যদের সহযোগিতায় কার্যক্রম শুরু করলেও এখন নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিরা এগিয়ে এসেছেন। করোনাকালে এসব কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান নাট্যকার এই শিক্ষক। তবে তিনি সকলের সহযোগিতাও প্রত্যাশা করেছেন। করোনা স্কোয়াডে ২১ জন সদস্য রয়েছেন। প্রত্যেকেই দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। ‘মানবতার সেবায় আমরা’ স্লোগান ধারণ করে স্কোয়াডের সদস্যরা এলাকার নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত মানুষের পরিচয় গোপন রেখে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছেন।

‘সেবার গাড়ি’ নিয়ে মানুষের পাশে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক

 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সচেতনতামূলক কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে শুরু করলেও সংগঠনটি এখন মানুষের খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার কাজটিই করছেন। প্রতিদিনই শৈলকুপা থানার ভাটই বাজার এলাকায় হতদরিদ্র নিম্নবিত্ত মানুষের তালিকা করে খাবার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ইফতার তৈরি করে রোজাদার মানুষের জন্য সরবরাহ করা হচ্ছে। এখন শতাধিক পরিবারের জন্য ঈদ উপহার পৌঁছে দেওয়ার কার্যক্রম চলছে। স্কোয়াডের সদস্যরা নিজেদের সুরক্ষিত রেখে ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে এসব কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। স্কোয়াডের কার্যক্রমের মূল উদ্দেশ্য- করোনাকালের বিপদে সাধ্যমতো মানুষের সহযোগিতায় এগিয়ে আসা এবং সমাজের বিত্তবান মানুষদেরকেও গরিব-অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আহ্বান করা হচ্ছে। এছাড়া যে কেউ যোগাযোগ করলে তাদেরকে সহযোগিতা করা হচ্ছে। আর এসব সহযোগিতা পাওয়া ব্যক্তিরা এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন ও কৃতজ্ঞতা পোষণ করেছেন।

করোনা স্কোয়াড-এক’ এর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক হীরক মুশফিক বলেন, আমরা সকলেই জানি করোনাকালের সময়ে দিনে দিনে আমরা অসহায় হয়ে পড়েছি। খেটে খাওয়া মানুষগুলোও কর্মহীন হয়ে পড়েছে। এছাড়া হতদরিদ্র মানুষগুলো খাবারের অভাবে অনাহারে থাকছে। আবার সমাজের মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষগুলোও লোকলজ্জার ভাবনায় সহযোগিতা নিতে পারছেন না। সে জায়গা থেকে সচেতনতা অবলম্বন করে আমরা এগিয়ে আসার চেষ্টা করেছি যাতে করে কর্মহীন অসহায় মানুষগুলো ভালো থাকেন। পাশাপাশি যারা সহযোগিতার জন্য কারোর কাছে যেতে পারছেন না তাদেরও সহযোগিতা করা হচ্ছে। একইসঙ্গে সমাজের বিত্তবান মানুষদের এগিয়ে আসা ও তরুণদেরকে মানবিক হওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।

সবখবর/ আআ




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর