২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন | সব খবর | Sob khobar
  1. admin@sobkhobar.com : admin :
  2. editor@sobkhobar.com : editor :
২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন | সব খবর | Sob khobar




২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন

সব খবর রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫৬ জন পড়েছে

জিসান হত্যাকান্ডের মামলা দায়েরের ২৪ ঘন্টার মধ্যেই রহস্য উদঘাটন করে পাঁচ জনকে প্রেপ্তার করেছে শিবালয় থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) শিবালয়ের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-শিবালয় থানার ছোট শাকরাইল গ্রামের আজিজুল মোল্লা (১৮), রাব্বি (১৯), নাজমুল (১৯), শাহীন (১৯) ও পূর্ব ঢাকাই জোড়া গ্রামের হাসিবুল হাসান (১৮)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মোঃ তানভির আহাম্মেদ জিসান গত ১৫ নভেম্বর অনুমানিক দুপুর ১ টার দিকে তার নানা বাড়ী ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে ঢাকাস্থ মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে বাহির হয়। পরবর্তীতে জিসান বাসায় ফিরে না আসায় এবং ব্যবহৃত ফোন নাম্বার বন্ধ পাওয়ায় গত ২৩ নভেম্বর তার বাবা মোহাম্মদপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এদিকে গত ১৮ নভেম্বর দুপুরে পাটুরিয়া ঘাটের ২নং পুরাতন টার্মিনাল সংলগ্ন এলাকায় পদ্মা নদীর তীরে একটি অজ্ঞাতনামা ছেলের লাশ উদ্ধার করে নৌ পুলিশ। লাশটি উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। পোস্ট মর্টেম শেষে লাশটি দাফনের ব্যবস্থা করা হয়। পরবর্তীতে ২৫ নভেম্বর শাহিন আলম নামে এক ব্যক্তি ছবি দেখে লাশ শনাক্ত করেন যে লাশটি তার ছেলে জিসানের (১৯)। লাশটি শনাক্ত হবার পর সেদিনই জিসানের পিতা শাহিন আলম শিবালয় থানায় অজ্ঞাতনামা আসামীদের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফিরোজ কবির জানান, অভিযোগের সূত্র ধরে শিবালয় সার্কেলের অতিঃ পুলিশ সুপার তানিয়া সুলতানা স্যারের তত্বাবধানে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর আশীষ কুমার স্যানালকে সাথে নিয়ে শিবালয়ের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৫ জন আসামীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। এরপর জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে হত্যার উদ্দেশ্য, হত্যাকারী, হত্যার স্থান ও হত্যার উপায় সম্পর্কিত তথ্য।

তিনি আরো জানান, আদালতে দু’জন আসামী ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। বাকি ৩ জনকে আদালতে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম জানান, মামলা দায়েরের ২৪ ঘন্টার মধ্যে শিবালয় সার্কেল ও শিবালয় থানার যৌথ প্রচেষ্টায় মামলার রহস্য উদঘাটনসহ আসামীদের স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি আদায় ন্যায়বিচার নিশ্চিতকরণে নিঃসন্দেহে একটি মাইলফলক উদাহরণ।

সবখবর/ আসাদ

 




Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর




ফেসবুকে সব খবর